২০ কার্যদিবসে ৩৩ হাজার আসামির জামিন, ভার্চুয়াল আদালতে

0
120
২০ কার্যদিবসে ৩৩ হাজার আসামির জামিন, ভার্চুয়াল আদালতে
২০ কার্যদিবসে ৩৩ হাজার আসামির জামিন, ভার্চুয়াল আদালতে

সারা দেশের অধস্তন আদালতে গত ২০ কার্যদিবসে ৬০ হাজার ৩৮৯টি জামিন আবেদনের শুনানি ও নিষ্পত্তি হয়েছে। ভার্চুয়াল মাধ্যমে এসব আবেদনের শুনানিতে আদালত থেকে বিভিন্ন মামলায় ৩৩ হাজার ১৫৫ জন জামিন পেয়েছেন।

সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান আজ শুক্রবার সাংবাদিকদের জানান, ৭ থেকে ১১ জুন পর্যন্ত সারা দেশের অধস্তন আদালতে ১২ হাজার ৭৬২টি জামিন আবেদনের শুনানি ও নিষ্পত্তি হয়। এই পাঁচ কার্যদিবসে অধস্তন আদালত থেকে ভার্চুয়াল শুনানিতে ছয় হাজার ৬৭৫ জন জামিন পেয়েছেন।

এ ছাড়া গত ১১ মে থেকে ১১ জুন পর্যন্ত সময়ের মধ্যে আদালতের ২০ কার্যদিবসে ৩৩ হাজার ১৫৫ জন জামিন পেয়েছেন।

সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের তথ্যমতে, কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর ১১ থেকে ২৮ মে পর্যন্ত ১০ কার্যদিবসে সারা দেশের অধস্তন আদালতে ৩৩ হাজার ২৮৭টি জামিন আবেদনের শুনানি ও নিষ্পত্তি হয়। এই সময়ে অধস্তন আদালত থেকে ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে শুনানির মাধ্যমে ২০ হাজার ৯৩৮ জন জামিন পান। আর ৩১ মে থেকে ৪ জুন পর্যন্ত পাঁচ কার্যদিবসে সারা দেশের অধস্তন আদালতে ১৪ হাজার ৩৪০টি জামিন আবেদনের শুনানি ও নিষ্পত্তি হয়। এই সময়ে অধস্তন আদালত থেকে ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে শুনানির মাধ্যমে ছয় হাজার ৫৪২ জন জামিন পান।

গত ৯ মে ভার্চুয়াল কোর্টের শুনানির জন্য অধ্যাদেশ জারি করা হয়। পরদিন ১০ মে উচ্চ আদালতের সব বিচারপতিকে নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সে ফুল কোর্ট সভা করেন প্রধান বিচারপতি। এরপর উচ্চ আদালতসহ অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল শুনানিতে বিজ্ঞপ্তি জারি করে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। তার পর থেকে উচ্চ আদালতসহ সারা দেশে ভার্চুয়াল কোর্টে বিচারকাজ অব্যাহত রয়েছে।

এর মধ্যে দফায় দফায় সাধারণ ছুটিরও মেয়াদ বাড়ানো হয়। সর্বশেষ গত ১৬ মে দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে সাধারণ ছুটির মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়। তবে সরকার ৩০ মের পর সাধারণ ছুটি আর না বাড়ালেও আদালত অঙ্গনে নিয়মিত কার্যক্রমের পরিবর্তে ভার্চুয়াল বিচারকাজ অব্যাহত থাকবে ১৫ জুন পর্যন্ত।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY