আ.লীগ নেতাদের হত্যার হুমকি মামুনুলের শ্বশুরকে নোটিশ দেওয়ায় !

0
57

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণার বাবা ওয়ালিয়ার রহমানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়ায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) বিকালে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন আলফাডাঙ্গা উপজেলার ২নং গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোনায়েম খান।

জান্নাত আরা ঝর্ণার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা ওলিয়ার রহমান ২ নম্বর গোপালপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। হেফাজতে ইসলামের রাজনীতিতে জড়িতদের সঙ্গে আত্মীয়ের সম্পর্ক গড়ার বিষয়টি গোপন রাখায় কেন তাকে দলের কমিটি থেকে বাদ দেওয়া হবে না, জানতে চেয়ে ১২ এপ্রিল কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ।

জিডিতে মোনায়েম খান উল্লেখ করেন, ওলিয়ার রহমানের পরিবার বর্গ হেফাজতের সঙ্গে জড়িত থাকায় আওয়ামী লীগের কর্মপরিকল্পনা ফাঁস হওয়ার আশঙ্কা থাকায় ১২ এপ্রিল তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।

নোটিশ দেওয়ার পরদিন ১৩ এপ্রিল সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা থেকে শুরু করে সাতটার মধ্যে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা (০০৩৯৩২৯১০৭৪১৮০, ৬০১১১৬৭০৪৮৪০, ৩৭০৫৭৭৯ নম্বর থেকে আমাকে কল করে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে এবং হত্যার হুমকি দেয়।

এছাড়া একই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ফরিদ উদ্দিনের মোবাইল নম্বরে (৩১৩২৬৫৫) নম্বর থেকে ফোন করে মামুনুল হক পরিচয় দিয়ে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে এবং হত্যার হুমকি দেন। এ ঘটনায় আইনের সাহায্য চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি আমি।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ফরিদ উদ্দিন বলেন, ওলিয়ার রহমানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়ায় আমার ব্যক্তিগত মোবাইলে মামুনুল হক পরিচয় দিয়ে ফোন দেন। আমাকে অশ্লীল গালিগালাজ করা হয় এবং হত্যার হুমকি দেওয়া হয়।

তিনি আরো বলেন, আমাকে হুমকি দিয়ে বলা হয়, তোর মনে যা খেতে চায়; খেয়ে নে, আর বেশি দিন বাঁচতে পারবি না।

আলফাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, হুমকি দেওয়ার ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোনায়েম খান। বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY