করোনায় মারা গেলেও ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত বেতন দেবে টাটা গ্রুপ

0
40
করোনায় মারা গেলেও ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত বেতন দেবে টাটা গ্রুপ

করোনাভাইরাসে কর্মী মারা গেলে তার পরিবারের জন্য মহৎ এক ঘোষণা দিয়েছে ভারতের অন্যতম বৃহৎ সর্ববৃহৎ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান টাটা গ্রুপ।

সোমবার (২৪ মে) এক ঘোষণায় প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, করোনায় তাদের প্রতিষ্ঠানের কোনো কর্মী মারা গেলে তার অবসরের বয়স না হওয়া পর্যন্ত (৬০ বছর) ওই ব্যক্তির পরিবারকে মাসিক বেতন দেওয়া হবে। এছাড়া জীবিত থাকতে ওই কর্মী চিকিৎসা, বোনাসসহ যেসব আর্থিক সুবিধা পেতেন সেগুলোও তার পরিবারকে দেওয়া হবে। একইসঙ্গে মৃত কর্মীর সন্তানদের স্নাতক পর্যন্ত পড়াশোনার সব খরচও বহন করবে টাটা।

সোমবার বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়। এছাড়া সংস্থাটির পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, এ ভয়াবহ মহামারির সময় টাটা স্টিল তার প্রিয় কর্মচারীদের মৃত্যুতে শোকার্ত, তাতের এ সময়ে পাশে দাঁড়াতে চায়। সে জন্য কোম্পানির পক্ষ থেকে একটি সামাজিক সুরক্ষা স্কিম চালু করা হচ্ছে।

ভারতের টাটা গোষ্ঠীর শিল্পপতি রতন টাটা কেবল সাফল্যই নয়, মানবিকতা ও বিনয়ের জন্যও সুপরিচিত। নতুন করে আবারও সেই দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করলেন তিনি। এর আগে, দেশটির গ্লাস প্রস্তুতকারক কোম্পানি বোরোসিল তার কোম্পানির মারা যাওয়া কর্মীদের দুই বছর বেতন এবং সন্তানদের পড়াশোনার ব্যয়ভার বহনের ঘোষণা দিয়েছিল।

করোনায় মৃত কর্মীর গ্লাস প্রস্তুতকারক কোম্পানি বোরোসিল জানায়, কোভিডে মারা যাওয়া কর্মীদের পরবর্তী দুই বছরের জন্য বেতন প্রদান করবে তারা। একটি লিঙ্কডইন পোস্টে বোরোসিল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শ্রীবর খেরুকা জানান, তার কোম্পানি মারা যাওয়া কর্মীদের সন্তানদের পড়াশোনার ব্যয় বহন করবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY