কিশোরীকে ৩ দিন আটক রেখে ধর্ষণ

0
187
কিশোরীকে ৩ দিন আটক রেখে ধর্ষণ
কিশোরীকে ৩ দিন আটক রেখে ধর্ষণ

বরগুনার বামনা উপজেলার রামনা ইউনিয়নে এক কিশোরীকে তিন দিন আটক রেখে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার কিশোরীর মা ন্যায় বিচারের দাবিতে বামনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

ঘটনার পর থেকে ধর্ষক খলিল আকন্দ (৩২) পলাতক রয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিবেক সরকার এ বিষয় বুধবার অভিযুক্ত ধর্ষক ও কিশোরীকে তার দফতরে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, বরগুনা জেলার বামনা উপজেলার ডৌয়াতলা ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডের আলতাফ আকনের ছেলে খলিল আকন (৩২) এক কিশোরীকে শুক্রবার সকালে অপহরণ করে নিয়ে যায়। কিশোরীর মা তার মেয়েকে অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে বামনা থানায় জানান।

পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষকের বাড়ি গিয়ে খলিলের পরিবারকে চাপ প্রয়োগ করলে ধর্ষকের পরিবার সোমবার সকালে কিশোরীকে স্থানীয় ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম স্বপনের মাধ্যমে তার পরিবারের হাতে ফিরিয়ে দেয়। এতে কিশোরীর অসহায় পরিবার ধর্ষণের বিচার না পাওয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে মঙ্গলবার দুপুরে একটি লিখিত আবেদন করেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম স্বপন বলেন, কিশোরী আমাকে বলেছে তাকে একাধিকবার খলিল ধর্ষণ করেছে। খলিল পলাতক থাকায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

এ বিষয়ে বামনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিবেক সরকার বলেন,ধর্ষণের বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ আমি পেয়েছি। থানায় জিডি হয়েছে। তারপরও বিষয়টি আমি দেখছি।

বামনা থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ধর্ষণের বিষয়ে আমার জানা নেই। মেয়ের মা যদি আমার কাছে লিখিত অভিযোগ দেয় তাহলে অবশ্যই আমি মামলা নেব।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY