‘জিরো থেকে হিরো’ যারা…

0
67

প্রত্যাবর্তনের অসাধারণ গল্প লিখে ২০২১ আইপিএল খেলতে আসা বেশ কিছু তারকা ক্রিকেটার বুঝিয়েছেন ‘জিরো থেকেও হিরো হওয়া যায়’। গত বছর থেকে শুরু করে কয়েক মাস আগে পর্যন্ত তাঁদের খারাপ পারফরমেন্স নিয়ে সমালোচকরা প্রশ্ন তুলেছিলেন। কিন্তু এবার তাদের সকলকে বাইশ গজে নিজেদের পারফরমেন্স দিয়েই জবাব দিলেন। চলুন দেখে নেওয়া যাক এবারের আইপিএলে বাইশ গজের ফিরে আসার সেই পাঁচ সফল নায়ককে।

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল: গত আইপিএলে সেভাবে খেলতে পারেননি ম্যাক্সওয়েল। তাকে ছেড়ে দিয়েছিল তার সাবেক দল পাঞ্জাব। এবছর তিনি ফিরে আসলেন, ফিরলেন চ্যাম্পিয়নের মতোই। বিরাট কোহলির রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু যে তাকে কিনে ভুল করেনি সেটার প্রমাণ দিলেন ম্যাক্সওয়েল। আরসিবির জার্সি গায়ে এখনও পর্যন্ত সাত ম্যাচে করলেন ২২৩ রান।

মহেন্দ্র সিং ধোনি: ২০২০ আইপিএল সুখের হয়নি ক্যাপ্টেন কুলের। আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত ওই আসরে ৭ নম্বরে থেকে শেষ করতে হয়েছিল ধোনির চেন্নাইকে। ১৪টি ম্যাচের মধ্যে মাত্র ৬টি তে জিততে পেরেছিল সিএসকে। কড়া সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল অধিনায়ক ধোনিকে। সেখান থেকে বেরিয়ে ২০২১ আইপিএল-এ চমক দিয়েছেন মাহি। এখনও পর্যন্ত ৬টির মধ্যে সাতটিতে জিতেছে ধোনির দল। মাহির পারফরমেন্সেও খুশি সকলে।

পৃথ্বী শ: ২০২০ আইপিএল ভাল যায়নি পৃথ্বী শ’র। সেই বছর একটিও শতরান পাননি তিনি। ১৩ ম্যাচে করেছিলেন ২২৮ রান। তাঁর এই পারফরমেন্স দেখে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন। সমালোচকরা তাঁর দিকে আঙুল তুলেছিলেন। এবার তাদের সকলকে নিজের ব্যাট দিয়ে জবাব দিলেন পৃথ্বী। চলতি আইপিএলে এখনও পর্যন্ত ৭টি ম্যাচে তিনি মাঠে নেমেছেন। তার ব্যাট থেকে এসেছে ২৬৯ রান। তাঁর ব্যাটিং স্ট্রাইক রেটও চোখে পড়ার মতো, তাঁর ব্যাটিং স্ট্রাইক রেট হল ১৬৫.০৩।

হার্ষাল প্যাটেল: হার্ষাল প্যাটেলের ওভারেই রবীন্দ্র জাদেজা ৩৬ রান হাঁকিয়েছিলেন। এরপরে যেকোনও তরুণ বোলারেই ব্যাকফুটে চলে যাওয়ার কথা। কিন্তু দারুন ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে চলতি মৌসুমে এখনও পর্যন্ত বেগুনি টুপি নিজের দখলে রেখে দিয়েছেন হার্ষাল প্যাটেল। ২০২০ আইপিএলও খুব একটা ভাল যায়নি হার্ষালের। মোট ৫টি ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি, নিয়েছিলেন মাত্র ৩টি উইকেট। তবে চলতি বছর এখন পর্যন্ত ৭ ম্যাচে তিনি নিয়েছেন ১৭টি উইকেট।

শিখর ধাওয়ান: চলতি মৌসুমে এমুহূর্তে কমলা টুপির মালিক তিনিই। ১৪তম আইপিএলে তাঁর ব্যাট বাইশ গজে কথা বলছে। ৭ম্যাচে এখনও পর্যন্ত ৩১১ রান করে ফেলেছেন। গত মৌসুমেও অবশ্য তিনি কমলা টুপির কাছেই ছিলেন। ১৭ ম্যাচে করেছিলেন ৬১৮ রান। তবে নিজের সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখলেন ধাওয়ান।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY