তীব্র রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব, তবু কী আজ মোদী-মমতা এক মঞ্চে

0
73
তীব্র রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব, তবু কী আজ মোদী-মমতা এক মঞ্চে
তীব্র রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব, তবু কী আজ মোদী-মমতা এক মঞ্চে

স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৪তম জন্মদিন পালিত হচ্ছে ভারতজুড়ে। কেন্দ্রীয়ভাবে আজকের এই দিনকে পরাক্রম দিবস হিসাবে মানা হচ্ছে। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার আজকের দিনকে পালন করছে দেশনায়ক দিবস হিসেবে।

জাতীয় এই দিবসকে সামনে রেখে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শনিবার (২৩ জানুয়ারি) ৬ ঘণ্টার সফরে কলকাতায় যাচ্ছেন। ন্যাশনাল লাইব্রেরির ও ভিক্টোরিয়ায় পরাক্রম দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন তিনি। ওই অনুষ্ঠান উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও।

সরকারি সূচি বলছে, ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে বিকেল চারটায় মূল অনুষ্ঠান শুরু হবে। সেখানে তিনি নির্ভীক সুভাষ নামের একটি প্রদর্শনী কেন্দ্রের উদ্বোধন করবেন মোদি। উদ্বোধন করবেন নেতাজির ওপর তৈরি একটি প্রজেকশন ম্যাপিং প্রদর্শনীরও। উন্মোচন করবেন নেতাজি পত্রাবলী শীর্ষক একটি বইয়ের মোড়ক। প্রকাশ করবেন মুদ্রা ও স্মারক ডাক টিকিটেরও। ওই অনুষ্ঠানের প্রাক্তন সেনাসদস্য এবং নেতাজির গড়া আজাদ হিন্দু ফৌজের সদস্যদেরও সংবর্ধনা দেবেন।

বলা হচ্ছে, ওই অনুষ্ঠানের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এমন কি তার ভাষণের জন্যও সময় বরাদ্দ রাখা হয়েছে। যদিও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তার তৃণমূল সরকারের পক্ষ থেকেও রাজ্যজুড়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের অংশ নিচ্ছেন। দুপুরে শ্যামবাজার থেকে তার একটি র‌্যালিতে পা মেলানোর কথা রয়েছে। একই সঙ্গে নেতাজি ভবনে আয়োজিত নেতাজি কমিটির পক্ষ থেকে এক অনুষ্ঠানের বক্তব্য রাখবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে সব কিছুর বাইরে ভিক্টোরিয়ার অনুষ্ঠানে মোদী-মমতাকে এক ফ্রেমে পাওয়া যাবে কিনা সেটা নিয়েই সবার মাঝে কৌতুহল রয়েছে। কেননা, আগামী বিধানসভা ভোটের কারণে কেন্দ্রের শাসক বিজেপি এবং রাজ্যের শাসক তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে তুমুল রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে। বিশেষ করে মমতার দল থেকে শীর্ষ কয়েকজন নেতা ও মন্ত্রী সম্প্রতি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এই ঘটনায় মমতা-মোদীর সম্পর্কে ফাটল ধরেছে বলেই মনে করা হয়। তবে সবকিছুর ঊর্ধ্বে রাষ্ট্রীয় ঐক্য। রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকলে মমতা সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা তৈরি হবে ভারতজুড়ে। অন্যদিকে মমতার রাজ্যে রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে মমতাকে আমন্ত্রণ না জানানোও রাষ্ট্রীয় নীতির পরিপন্থী হতো। তাই এটা প্রায় নিশ্চিতভাবে বলা যায়, রাজনৈতিক কারণে মতান্তর হলেও রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে আজ বিকেলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাশাপাশি দেখা যাবেই।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY