নববধূর পরকীয়া সইতে না পেরে স্বামীর আত্মহত্যা

0
104

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে স্ত্রীর পরকীয়া সহ্য করতে না পেরে বিয়ের দেড় মাসের মাথায় বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন মাসুদ মিয়া (২৬) নামে এক যুবক। রবিবার দিবাগত রাত একটার দিকে উপজেলার কাঠাঁলীডিংগা গ্রামে নিজ বাড়িতে আত্মহত্যা করেন মাসুদ।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কাঠাঁলিডিংগা গ্রামের দরিদ্র মা সকিনা বিবির (৫০) একমাত্র সন্তান মাসুদ মিয়া। পিতাহারা দরিদ্র পরিবারের মাসুদ ইঁদুর মারার বিষ ফেরি করে বিক্রি করে সংসার চালায়। গত ২৩ এপ্রিল শুক্রবার মাসুদ মিয়ার সাথে পার্শ্ববর্তী রায়ের গ্রাম এলাকার হারুন মিয়ার মেয়ে সামিরা আক্তারের (২০) বিয়ে হয়। মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে সামিরা দাখিল পাশ।

বিয়ের পর দরিদ্র স্বামীর সংসারে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছিলেন না তিনি। ফলে সংসারে অশান্তি লেগেই থাকতো। এক পর্যায়ে সামিরা পার্শ্ববর্তী ছয়ানি গ্রামের এক বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। গত মঙ্গলবার (১ জুন) সামিরা সেই প্রেমিকের হাত ধরে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এর ৪ দিন পর সামিরা তার প্রেমিকের কাছ থেকে পিতার বাড়িতে ফিরে আসে।

নববধূর পরকীয়া সইতে না পেরে স্বামীর আত্মহত্যা

এ ঘটনার পর বিয়ের ঘটক ও সামিরার নিকট আত্মীয়, মাসুদের প্রতিবেশী কাদির মিয়া রবিবার সকালে মাসুদের বাড়িতে এসে মাসুদের দরিদ্রতাকে দায়ী করে ভৎসনা করে। স্ত্রীর পরকীয়া ও কাদির মিয়ার ভৎসনা সহ্য করতে না পেরে রবিবার দুপুর ২টার দিকে ইঁদুর মারার বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় মাসুদ। তাকে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। রাত একটার দিকে অবস্থার অবনতি হলে বাড়িতেই তার মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে গফরগাঁও থানার ওসি অনুকুল সরকার বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে । ঘটনার তদন্ত চলছে।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY