ফিলিস্তিনপন্থীদের গায়ে হাত দিতে অস্বীকৃতি ব্রিটিশ দমকলকর্মীদের

0
69

নিরপরাধ ফিলিস্তিনিদের ওপর চলমান আগাসনের প্রতিবাদে যুক্তরাজ্যে ইসরায়েলি মালিকানাধীন একটি ড্রোন কারখানায় তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে ফিলিস্তিনপন্থী আন্দোলনকারীরা। তাদের কয়েকজন কারখানাটির ছাদে উঠেও অবস্থান নেন। এসব প্রতিবাদকারীকে নামাতে স্থানীয় দমকল বাহিনী ডেকেছিল ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তাতে সাড়া দেননি দমকলকর্মীরা। তারা জানিয়েছেন, মানবিক কাজে নিয়োজিত এই বাহিনী ফিলিস্তিনপন্থীদের গায়ে হাত দিতে পারে না।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবর অনুসারে, গত বুধবার যুক্তরাজ্যের লেস্টার শহরে ইসরায়েলি মালিকানাধীন এলবিট সিস্টেমের সহায়ক প্রতিষ্ঠান ইউএভি ট্যাকটিক্যাল সিস্টেমসের কারখানা দখল করে নেয় ‘প্যালেস্টাইন অ্যাকশন’ নামে একটি সংগঠনের আন্দোলনকারীরা।

তাদের অভিযোগ, ওই কারখানায় তৈরি ড্রোন গাজায় নিরীহ ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা চালাতে ব্যবহৃত হচ্ছে। এর জন্য কারখানাটির প্রবেশদ্বারে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে আন্দোলনকারীরা। এতে সেখানকার উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে বলেও দাবি তাদের।

এ বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি এলবিট কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে প্যালেস্টাইন অ্যাকশনের এক মুখপাত্র জানান, ইসরায়েলি ড্রোন কারখানাটির গেটের বাইরে শতাধিক বিক্ষোভকারী অবস্থান নিয়েছেন। আর কারখানার ছাদে অবস্থান নেয়া বিক্ষোভকারীরা রাতভর সেখানেই থাকবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ব্রিটিশ পুলিশ জানিয়েছে, তারা ছাদের ওপর থাকা আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করছে।

এদিকে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, লেস্টারশায়ার ফায়ার ব্রিগেড ইউনিয়নের সদস্যরা ইসরায়েলি কারখানার ছাদ থেকে ফিলিস্তিনপন্থী আন্দোলনকারীদের নামাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। ইউনিয়নের প্রধান গ্রাহাম ভক্সের এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

প্যালেস্টাইন অ্যাকশনের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করা ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইউনিয়ন কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিকভাবে জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপকদের মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, দমকলকর্মী হিসেবে আমরা একটি গর্বিত মানবিক সেবায় আছি এবং থাকব। আইনপ্রয়োগে আমাদের কোনো ভূমিকা নেই।

‘এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের (আন্দোলনকারী) সুরক্ষা নিশ্চিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থল থেকে ফায়ার ব্রিগেড ইউনিয়নের সদস্যদের প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ফায়ার ব্রিগেড ইউনিয়ন ফিলিস্তিনি সংহতি এবং বিক্ষোভের অধিকারকে সমর্থন করে।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY