মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের খবর প্রকাশের ‘অপরাধে’ দুই সাংবাদিকের জেল

0
66

সামরিক অভ্যুত্থান নিয়ে কথিত ভুয়া খবর প্রকাশের অভিযোগে দুই সাংবাদিককে কারাদণ্ড দিয়েছে জান্তা-শাসিত মিয়ানমার। বহু পুরোনো ঔপনিবেশিক আইন ব্যবহার করে তাদের এ সাজা দিয়েছেন দেশটির একটি সামরিক আদালত।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার খবর অনুসারে, গত বুধবার মিয়ানমারের দক্ষিণাঞ্চলীয় মায়েইক শহরের একটি সামরিক আদালত ডেমোক্র্যাটিক ভয়েস অব বার্মার (ডিভিবি) সাংবাদিক অং কিয়াউ এবং মিজিমা নিউজের ফ্রিল্যান্সার সাংবাদিক জউ জউকে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন।

সংবাদমাধ্যম দু’টির মতে, জেনারেল মিন অং হ্লেইংয়ের ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে অভুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ নিয়ে সংবাদ প্রচার করার কারণেই এ দুই সাংবাদিককে সাজা দেয়া হচ্ছে।

অং কিয়াউ হচ্ছেন ডিভিবির তৃতীয় সাংবাদিক, যাকে অভুত্থানবিরোধী বিক্ষোভের সংবাদের জন্য বন্দি করেছে জান্তা সরকার।

এক বিবৃতিতে ডিভিবি বলেছে, ‘সামরিক জান্তা অবৈধভাবে অং কিয়াউকে বন্দি রেখেছে। এটি পরিষ্কারভাবে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।’ এ সাংবাদিকের দ্রুত মুক্তি দাবি করেছে সংবাদমাধ্যমটি।

মিজিমা জানিয়েছে, জউ জউ হচ্ছেন অভ্যুত্থান শুরুর পর থেকে বন্দি হওয়া তাদের পঞ্চম সাংবাদিক।

সংবাদমাধ্যমটি বলেছে, ‘মিজিমা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে, সাংবাদিকতা ও বাকস্বাধীনতা কোনো অপরাধ নয়। আর তাই মিজিমাসহ মিয়ানমারের সকল মিডিয়া আউটলেটকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেয়া উচিত।’

পর্যবেক্ষক সংগঠন রিপোর্টিং আসিয়ানের হিসাবে, গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ৮৭ জন সাংবাদিককে গ্রেফতার করা হয়, যাদের মধ্যে ৫১ জন এখনো বন্দি। বন্দিদের মধ্যে দুই মার্কিনিসহ বেশ কয়েকজন বিদেশি সাংবাদিকও রয়েছেন।

মার্কিন উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়েন্ডি শেরম্যান বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র বন্দি সাংবাদিকদের মুক্তি দিতে মিয়ানমার জান্তার ওপর চাপ অব্যাহত রেখেছে।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY