উল্লাপাড়ার কৃষকরা সঠিক সময়ে সরিষার আবাদ করতে পারছেন না

0
171

বার বার বন্যায় উল্লাপাড়ার দ্বিতীয় প্রধান ফসল সরিষার চাষ পিছিয়ে পড়েছে। কার্তিকের শুরু থেকেই উল্লাপাড়া উপজেলায় সরিষা বোনা শুরু হয়। কিন্তু আশ্বিনের মাঝ সময়ে ৪র্থ বার বন্যা হওয়ায় মাঠে দীর্ঘ সময় পানি থাকায় জমিগুলোর ওপর লোনা ধরে গেছে। বর্তমানে জমি থেকে পানি নেমে গেলেও লোনা ধরার কারণে জমিগুলো শুকাতে দেরি হচ্ছে। ফলে কৃষকেরা সঠিক সময়ে সরিষার চাষ শুরু করতে পারছেন না ।

চলতি মৌসুমে উল্লাপাড়া উপজেলায় প্রায় ১৮ হাজার ৭ শ ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। উপজেলার প্রায় সবগুলো মাঠেই কমবেশি সরিষার চাষ হয়ে থাকে। এর মধ্যে উধুনিয়া, বড় পাঙ্গাসী, মোহনপুর, বাঙ্গালা, কয়ড়া, পূর্ণিমাগাতী, দুর্গানগর ইউনিয়ন এলাকায় সবচেয়ে বেশি পরিমাণ জমিতে সরিষার চাষ হয়ে থাকে।

কৃষকরা জানান, এখন সরিষা ফসলের চাষাবাদের মৌসুম চলছে। কার্তিক মাসের প্রথম থেকেই এর জমি তৈরি ও বীজ বোনা শুরু হয়। এখন কার্তিক মাসের মাঝামাঝি সময় চলছে। এখনো সরিষা বোনা শুরু করতে পারেনি কৃষক।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার বাঙ্গালা, উধুনিয়া, মোহনপুর, সদর ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি মাঠে এখনো কমবেশি বন্যার পানি রয়ে গেছে। আবার দু’একটি মাঠে পানি নামলেও জমি এখনো পুরোপুরি শুকায়নি। এবারের দীর্ঘমেয়াদী বন্যায় এমন অবস্থা হয়েছে বলে কৃষকরা জানান। তারা বলেন, জমি থেকে পানি নেমে যাওয়ার পর মাটি শুকালে তবেই হালচাষ দিয়ে জমি তৈরি করে সরিষার বীজ বোনা হবে  তারা আরো জানান, আবহাওয়া শুষ্ক ও কড়া রোদ থাকলে আগামী ৭ দিনের মধ্যে পুরোদমে সরিষার বীজ বোনা শুরু হবে। অতি নীচু এলাকায় এবারে সরিষা চাষ নাবী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

উল্লাপাড়া উপজেলা উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা মো, আজমল হক বলেন, এবারে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে প্রায় ১৮ হাজার ৭ শ ৫০ হেক্টর জমিতে এবং সরিষা বোনা দশ থেকে পনেরো দিন পিছিয়ে যাবে । তবে আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে সরিষা ফলনে কোনো সমস্যা হবে না। ইতোমধ্যেই কোনো কোনো এলাকায় দু’-একটি করে জমিতে সরিষা বীজ বোনা শুরু হয়েছে বলে এ প্রতিবেদককে জানানো হয়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY