মোবাইল ফোন ব্যবহার করায় আটক ২

0
34
মোবাইল ফোন ব্যবহার করায় আটক ২
মোবাইল ফোন ব্যবহার করায় আটক ২

তৃতীয় ধাপে ভোলার দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন পৌরসভায় উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে। কনকনে শীত উপোক্ষা করে সকাল ৮টা থেকে দৌলতখান পৌর এলাকার ভোটকেন্দ্রে বিভিন্ন বয়সী নারী পুরুষ ভোটারদের সরব উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে। বেলা ১১টা পর্যন্ত দৌলতখান ও বোরহানউদ্দিন পৌর সভার কোনো কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। তবে দৌলতখান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোবাইল ফোন ব্যবহার করার দায়ে দুই জনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ এবং সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের লক্ষে ভোলার দুই পৌরসভার ১৮টি ভোটকেন্দ্র ১৮জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, র‌্যাবের ৬টি টিম ও ৪টি বিজিবির টিমসহ বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ করছেন।

ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল সকাল ১০টায় দৌলতখান পৌরসভার দৌলতখান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নিজের ভোট প্রদান করেছেন। এসময় তিনি বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মানুষ নৌকার প্রার্থীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন।

সাধারণ ভোটাররা জানান, কোন প্রকার ভয় ভীতি ছাড়াই ভোট দিতে পারছেন। পথে কোন বাধা বিপত্তির মুখে পড়তে হচ্ছে না। দীর্ঘ দিন পর তারা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দেয়ার সুযোগ পেয়ে খুবই খুশি।

দৌলতখান পৌরসভার আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী মো. জাকির হোসেন জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতাকে বজায় রাখার জন্যই ভোটাররা তাকে ভোট দিবেন।

এদিকে দৌলতখান পৌরসভার বিএনপির মেয়র প্রার্থী বেলা ১১টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের কথা জানিয়েছেন। তবে তিনি জয়ের ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে চাননি।

বোরহানউদ্দিন ও দৌলতখান পৌরসভায় ৫ মেয়রসহ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৮১ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৬১ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৫ জন রয়েছেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY