যেভাবে চোখের যত্ন নেবেন

0
22

করোনার কারণে এখনো অনেক অফিসের কাজ বাসা থেকে করা হচ্ছে। বাড়িতে বেড়েছে কাজের পরিমাণ। এতে করে সারাদিনই কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইলে কাটছে সাথে বাড়ির কাজ তো রয়েছেই। ফলে চোখের উপর পড়ছে মারাত্বক প্রভাব। এজন্য চোখের মারাত্বক ক্ষতি হওয়ার আগেই সচেতন হন। বাড়িতে একটু সময় বের করে চোখের যত্ন নেন।

চোখে গরম-ঠান্ডা পানির ভাপ: একটা বাটিতে গরম পানি আর আরেকটা বাটিতে ঠাণ্ডা পানি নিয়ে নিন। তার পর একটা তোয়ালে গরম পানিতে ডুবিয়ে কিছু সময় চোখের ওপর রাখুন। তার পর ঠান্ডা পানি দিয়ে একই ভাবে চোখে ভাপ দিন। এমন কয়েক মিনিট করলে সারা দিন ধরে কাজ করতে করতে চোখের যে ক্ষতি হয়েছে, তা ঠিক হতে শুরু করবে। সেই সঙ্গে ক্লান্তি দূর হবে এবং দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটবে।

চোখের পাতা ফেলুন: স্ক্রিনে কাজ করার সময় স্বাভাবিক হারের চেয়ে অনেকটাই কম আমাদের চোখের পাতা পড়ে। ফলে চোখের উপর চাপ বাড়তে শুরু করে। কাজ করার সময় এদিকটা খেয়াল রাখুন। সে কারণেই যারা দিনের বেশিরভাগ সময় কম্পিউটারে কাজে করেন, তাদের কিছু সময় পরপর চোখের পাতা ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। এমনটা করলে চোখের ক্লান্তি দূর হবে সেই সাথে সমস্যাও দূর হবে।

চোখের ব্যায়াম: কিছু ব্যায়াম, যা চোখের ক্লান্তি দূর করার পাশাপাশি দৃষ্টিশক্তির উন্নতিতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। কম্পিউটারে কাজ করতে করতেই একটু সময় চোখ বন্ধ রাখুন। হাতের তালুর মধ্যে চোখগুলিকে একটু আরাম দিন। এমন কয়েক মিনিট করলেই দেখবেন চোখ অনেকটা সতেজ লাগছে। ক্লান্তিও দূর হচ্ছে।

চোখের মণি ঘোরান: প্রথমে ঘড়ির কাঁটার দিকে এবং তার পর ঘড়ির কাঁটার বিপরীতে চোখের মণিকে ঘোরাতে হবে। তবে খুব ধীরে ধীরে করবেন। এমনটা প্রতিদিন ২-৩ মিনিট করলেই দেখবেন দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটতে শুরু করেছে। সেই সঙ্গে মনযোগও বৃদ্ধি পাবে।

ফোকাস শিফটিং: চোখের পেশির ক্ষমতা বাড়াতে এই ব্যায়ামটি দারুন কাজে আসে। এক্ষেত্রে চোখের একেবারে সামনে যে বস্তুটি আছে তার দিকে তাকান। ৫ সেকেন্ড তাকিয়ে থাকার পর তার থেকে একটু দূরে রয়েছে এমন কিছুর দিকে এক দৃষ্টিতে পুনরায় ৫ সেকেন্ড তাকিয়ে থাকুন। এমনটা করতে থাকলে চোখের পেশির কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। আর দৃষ্টিশক্তি বাড়তে শুরু করে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY