রোহিঙ্গা বিষয়ে ১২ মার্কিন সিনেটরের চিঠি

0
189
রোহিঙ্গা বিষয়ে ১২ মার্কিন সিনেটরের চিঠি

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের শিকার হয়ে কয়েক লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন। রোহিঙ্গাদের মিয়ানমার রাখাইন রাজ্যে ফেরত পাঠানোর আগপর্যন্ত তাদের সুরক্ষা দিতে বাংলাদেশ সরকারকে অনুরোধ জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ১২ জন সিনেটর।

রোহিঙ্গাদের বিষয়ে গত সপ্তাহে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনকে লেখা যৌথ চিঠিতে এ অনুরোধ জানান ওই মার্কিন সিনেটররা।

৫ নভেম্বর ডেমোক্র্যাট পার্টির প্রতিনিধিত্বকারী ৯ মার্কিন সিনেটের মার্কো রুবিও, বেন কার্ডিন, ডিক ডারবিন, ক্রিস কুন্স, রন ওয়াইডেন, ক্রিস ভ্যান হলেন, এড মার্কি, করি বুকার ও এলিজাবেথ ওয়ারেন এবং রিপাবলিকান পার্টির তিন সিনেটর জেফ মার্কলে, সুজান কলিন্স ও রজার উইকার যৌথ স্বাক্ষরিত চিঠি পাঠানো হয়।

ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত ডেমোক্র্যাট পার্টির প্রভাবশালী সদস্য মার্কো রুবিওর ওয়েবসাইটে ৯ নভেম্বর প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে চিঠির তথ্যটি প্রকাশ করা হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনকে পাঠানো ওই চিঠির শুরুতে ৯ লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে সুরক্ষার জন্য বাংলাদেশের প্রশংসা করা হয়েছে। একইসঙ্গে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পরও রোহিঙ্গা শিবিরে স্বেচ্ছাসেবকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। রোহিঙ্গাদের জন্য সামাজিক সহায়তা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করতে হলে শিবিরে মানবিক সহায়তা কর্মী ও সুরক্ষাকর্মীদের অবাধ প্রবেশের সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন সিনেটররা।

রোহিঙ্গা শিবিরে অগ্নিকাণ্ড, নিরাপত্তাহীনতা এবং রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ জানিয়ে তারা ওই হত্যার স্বচ্ছ তদন্ত দাবি করেছেন। অপরাধীদের যাতে দায়মুক্তি দেওয়া না হয়।

চিঠিতে সিনেটররা লিখেছেন, রোহিঙ্গাদের জন্য ভাসানচরে বাংলাদেশ সরকারের বিপুল বিনিয়োগের বিষয়টিও সিনেটররা আমলে নিয়েছেন।

মার্কিন সিনেটের ১২ জন সদস্য লিখেছেন, আমরা রোহিঙ্গাদের জোর করে ভাসানচরে নেওয়া সমর্থন করি না এবং আমরা এ ধরনের নীতিতে সহযোগিতার জন্য অর্থায়নও নিষিদ্ধ করেছি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY