পাকিস্তান সিরিজ নিয়ে আত্মবিশ্বাসী শান্ত যা বললেন

0
40
পাকিস্তান সিরিজ নিয়ে আত্মবিশ্বাসী শান্ত যা বললেন

বিশ্বকাপ মিশনে ব্যর্থ বাংলাদেশ দলকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। দুই ওপেনার লিটন দাস, সৌম্য সরকার বাদ। তিন নম্বরে খেলা সাকিব ইনজুরিতে পড়ে বাইরে। আর মিডল অর্ডার মুশফিকুর রহিমও নেই।

এক কথায় নাঈম শেখ ছাড়া বিশ্বকাপ দলের টপঅর্ডারের কেউই নেই।

আর এমন নতুন দল নিয়ে আগামীকাল শক্তিশালী পাকিস্তানের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে টাইগাররা।

লিটন-মুশফিকদের অবর্তমানে এ দলে সুযোগ পেয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত, সাইফ হাসান আর ইয়াসির আলী রাব্বি।

শাহিন শাহ আফ্রিদির ইয়র্কার, হাসান আলির সুইং আর হারিস রউফের নিয়ন্ত্রিত বোলিং কীভাবে সামলাবেন সে প্রশ্ন করা হয় শান্তকে।

শান্তর আত্মবিশ্বাসী জবাব, টাইগাররা আক্রমণাত্মক খেলবেন। টি-টোয়েন্টির আগ্রাসী মেজাজেই ব্যাট করবেন।

পাক বোলারদের বিপক্ষে এমন আগ্রাসী ব্যাট করার সামর্থ্য আছে?

বুধবার বিসিবির পাঠানো ভিডিওতে আশার কথা শোনালেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

বললেন, ‘আমাদের প্রত্যেকে সামর্থ্য (পাক বোলারদের মোকাবিলার) রয়েছে। আমাদেরই দায়িত্ব নিতে হবে। এখানে সিনিয়র-জুনিয়র বলে কিছু নেই। প্রত্যেকেরই দায়িত্ব আছে। যার যে দায়িত্ব সমানভাবে পালন করতে হবে। যে যেই অর্ডারেরই ব্যাটিং করুক, উপভোগ করে খেলতে হবে। সাধারণত টি-টোয়েন্টি অবশ্যই রানেরই খেলা। আমি যখনই খেলি আমার লক্ষ্য থাকে আক্রমণাত্মক ক্রিকেটই খেলব। চিন্তা থাকে প্রথম বল থেকেই আগ্রাসী মেজাজে থাকব। তার মানে এই না যে প্রতি বলেই মারতে থাকব। অবশ্যই বল বিচার করে খেলব।’

অবশ্যই বিশ্বকাপের দুর্দান্ত পারফরমার বাবর-রিজওয়ান-ফখরদের সহজভাবে নিচ্ছেন না শান্ত। তবে একটি বড় সুবিধা চোখে পড়েছে তার।

এই টপঅর্ডার ব্যাটার বলেন, পাকিস্তান সেরা দলগুলোর একটি। বিপিএলে তাদের বেশ কয়েকজনের সঙ্গে খেলার সুযোগ হয়েছে। ওই দিক থেকে আমরা একটু আত্মবিশ্বাসী যে ওই বোলারদের মোকাবেলা করেছি বা ওই ব্যাটসম্যানের বিপক্ষে বল করেছি। এই সুযোগ আছে। আমরা শুধু বল দেখব, খেলব। বেশি চিন্তার কিছু নেই আমরা যেটা পারি সেটাই করব।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY