বনানীতে যুবলীগের শীতবস্ত্র বিতরণ

0
146

রাজধানীর বনানীতে অসহায়-দুস্থ মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে আওয়ামী যুবলীগ।

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) বনানী মডেল স্কুল মাঠে অসহায়-দুস্থ এক হাজার মানুষকে শীতবস্ত্র দেয় সংগঠনটি। এদিন রংপুর বিভাগের ৯টি জেলা শাখার নেতাদের কাছে রংপুর অঞ্চলের শীতার্ত মানুষের জন্য কম্বল হস্তান্তর করা হয়।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বলেন, ‘সোনার বাংলা’ কায়েম করার লক্ষ্যে ১৯৭৫ সালের এ জানুয়ারি মাসেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সংবিধানের চতুর্থ সংশোধনী এনেছিলেন। যেটা ‘দ্বিতীয় বিপ্লব’ হিসেবে পরিচিত, অনেকে ‘বাকশাল’ হিসেবেও জানে। কিন্তু আমরা ভুলে যাই এ দ্বিতীয় বিপ্লবের অনন্তমূলের তাৎপর্য। এর মূলে ছিল মানুষের ন্যায্য অধিকার আদায় করা, ন্যায়পরায়ণ সমাজব্যবস্থা কায়েম এবং মানবিকতা।

তিনি যুবলীগ নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়ে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি জনকল্যাণমূলক কর্মসূচিকে গুরুত্ব দিয়ে মানবিক বাংলাদেশের চেতনাকে পুনরুজ্জীবিত করেন। সৎ ও দক্ষ প্রধানমন্ত্রীর স্বীকৃতিসহ তিনি অর্জন করেন ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’, ‘বিশ্বমানবতার নেতৃত্ব’, ‘সর্বশ্রেষ্ঠ মানবিক নেতা’, ‘মানবতার চ্যাম্পিয়ন’ এবং অনেক মর্যাদাপূর্ণ বিশেষণ। তার উন্নয়ন তত্ত্ব এবং সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে প্রিয় বাংলাদেশও অর্জন করেছে সমৃদ্ধ ও মানবিক রাষ্ট্রের স্বীকৃতি।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান যুবলীগের অন্যতম লক্ষ্য রাষ্ট্রের মানবিক ধারাকে গতিশীল করতে নেতৃত্ব দেওয়া এবং ষড়যন্ত্রকারী ও প্রতিবিপ্লবীদের প্রতিহত করে মানুষের সুখে-দুঃখে সহমর্মী হওয়া। এ লক্ষ্যে যুবলীগ এরই মধ্যে অনেক মানবিক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে ‘মানবিক যুবলীগ’-এ পরিণত হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।

এসময় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. রফিকুল ইসলাম, আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মুতিউর রহমান বাদশা, মো. রফিকুল আলম জোয়ার্দার সৈকত, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মাজহারুল ইসলাম, সোহেল পারভেজ, অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল কবির, ঢাকা মহানগর যুবলীগ উত্তরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইন উদ্দিন রানা, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন, দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এইচ এম রেজাউল করিম রেজা, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন পাভেল, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শামছুল আলম অনিক, উপ-দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা, উপ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ নবীরুজ্জামান বাবু, উপ-আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক সফেদ আশফাক আকন্দ তুহিন, উপ-স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. মাহফুজুর রহমান উজ্জ্বল, সহ-সম্পাদক জামির আহমেদ, আরিফুল ইসলাম, আজিজুর রহমান সরকার, আলমগীর হোসেন শাহ জয়, রাশেদুল ইসলাম সাফিন, মনোয়ারুল ইসলাম মাসুদ, কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট নাজমুল হুদা নাহিদ, আব্দুর রহিম ভূইয়া, অধ্যাপক ড. ইঞ্জিনিয়ার তানভীর ফেরদৌস সাইদ, ইঞ্জিনিয়ার আসাদুল্লা তুষার, ড. রায়হান সরকার নিজভীসহ কেন্দ্রীয়, মহানগর ও বিভিন্ন জেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY