বরফঝড়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র

0
161

তীব্র ঠাণ্ডা আর শীতকালীন ঝড়ে বিপর্যস্ত হয় পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্যগুলো। বরফঝড়ে বিদ্যুৎসংযোগ ব্যাহত হওয়ায় অন্ধকারে ডুবেছে সেখানকার লাখ লাখ মানুষ। পাওয়ারআউটেজ ডট ইউএসের তথ্য বলছে, বরফঝড় আঘাত হানার পর টেক্সাস, আরাকানসাস, টেনেসি থেকে শুরু করে ওহাইয়ো, নিউইয়র্কে ৩ লাখ ৩০ হাজারের বেশি মানুষ বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, মার্কিন অঙ্গরাজ্যগুলোতে হিমশীতল বৃষ্টি ও তুষারপাতে গাছের ডালপালায় স্বচ্ছ বরফের আস্তরণ জমেছে। দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য টেক্সাসের কিছু অংশে প্রবল তুষারপাতের পর বিদ্যুৎ বিভ্রাট দেখা দিয়েছে।

ইউটিলিটির মুখপাত্র গেল কারসন বলেছেন, এলাকাগুলোতে খুব শিগগির বিদ্যুৎসংযোগ ফের চালু করা সম্ভব নয়। এতে কয়েক দিন লেগে যেতে পারে।

গত বছর প্রায় একই সময় টেক্সাসে ভয়াবহ তুষারঝড় হয়েছিল। এতে রাজ্যটির ১০ লাখের বেশি মানুষ বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে এবং কয়েকশ জন মারা যান। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে অন্যতম ভয়াবহ ব্ল্যাকআউটের ঘটনা এটি।

টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট জানিয়েছেন, তীব্র বাতাস এবং বরফে সংযোগ লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যটিতে বিদ্যুৎবিভ্রাট দেখা দিয়েছে।

তীব্র তুষারপাতের মধ্যে টেনেসির মেমফিস মহাসড়কে দুর্ঘটনার মুখে পড়েছে অন্তত ১৬টি গাড়ি। এতে আহত ছয়জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, যাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ ঘটনায় আরও চারজন সামান্য জখম হয়েছেন।

কর্মকর্তারা বলছেন, হিমাংকের কাছাকাছি তাপমাত্রার অর্থ, সেখানে বরফ সমস্যা আরও কয়েকদিন চলবে। এ অবস্থায় গাড়ি চালানো খুবই বিপজ্জনক।

মেমফিসের পাবলিক ওয়ার্কস ডিরেক্টর রবার্ট নেচট জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাতেও শহরটির রাস্তায় ২২৫টি উপড়েপড়া গাছ ছিল। সেগুলো সরাতে তাদের কর্মীরা দিনে ১৬ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজ করছেন।

ঝড়-বাদলে যুক্তরাষ্ট্রে প্লেন চলাচলও বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। বৃহস্পতি ও শুক্রবার দেশটিতে নয় হাজারের বেশি ফ্লাইট বাতিল হয়েছে। বুধবার ঝড় শুরুর আগে বাতিল করা হয়েছিল আরও দুই হাজারের বেশি ফ্লাইট।

মেরিল্যান্ড ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের আবহাওয়াবিদ রিক অটো জানিয়েছেন, আগামী কয়েকদিনে আরও তুষার পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবে ভ্রমণ ও বিদ্যুতে হুমকি তৈরি করেছে মূলত বরফের বিষয়টি। তিনি জানান, বরফের চেয়ে তুষার পরিষ্কার করা সহজ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY