দুর্গম জঙ্গলে র‌্যাবের অভিযান, অস্ত্রসহ ৫ সন্ত্রাসী আটক

0
156
দুর্গম জঙ্গলে র‌্যাবের অভিযান, অস্ত্রসহ ৫ সন্ত্রাসী আটক

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের দুর্গম জঙ্গল সলিমপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে মশিউর বাহিনীর ৫ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। উদ্ধার করা হয়েছে দেশি-বিদেশি অস্ত্র, গুলি, সেনাবাহিনীর ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম। সন্ত্রাসী বাহিনীটি দীর্ঘদিন অবৈধ প্লট বাণিজ্য আর চাঁদাবাজি করে আসছিল বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

সীতাকুণ্ডের জঙ্গল সলিমপুর এলাকায় সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে দীর্ঘদিন ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে আসছিল মশিউর বাহিনী। দুই মাস আগে র‌্যাবের হাতে বাহিনীপ্রধান গ্রেফতার হলেও চলছিল অবৈধ প্লট বাণিজ্য ও চাঁদাবাজি।

দুর্গম এলাকা হওয়ায় এর আগেও বিভিন্ন সময় অভিযান চালাতে গিয়ে ব্যর্থ হয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। র‌্যাব জানায়, শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে অভিযানে গেলে মশিউরের ছেলে শিবলুর নেতৃত্বে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপসহ গুলিবর্ষণ করে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় অভিযান চালিয়ে দশটি অস্ত্র, একটি ছোরা, গুলি, সেনা সদস্যদের ব্যবহৃত পোশাক, বাইনোকুলার উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় অস্ত্রধারী ৫ সন্ত্রাসীকে।

র‌্যাব-৭ এর উপ-অধিনায়ক মো. মোস্তফা জামান বলেন, তারা সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে চাঁদাবাজির মাধ্যমে অর্থ নিত। এ ছাড়া প্লট বাণিজ্য, বিদ্যুৎ বিল নিয়ে অবৈধভাবে টাকা উপার্জন করত।

দুর্গম সলিমপুরে এখন পর্যন্ত অবৈধভাবে চার হাজার প্লট বিক্রি করেছে মশিউর বাহিনী। প্রতিটি প্লটের মূল্য নেওয়া হয়েছে চার লাখ থেকে ছয় লাখ টাকা। অভিযানের পর সাধারণ মানুষের মনে স্বস্তি ফিরেছে বলেও দাবি র‌্যাবের।

র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক এম এ ইউসুফ বলেন, যাদের আমরা গ্রেফতার করেছি তাদের বিরুদ্ধে চার থেকে দশটি মামলা রয়েছে। আমরা আশা করছি এই অভিযানের পরে এই এলাকাটি মশিউরের দখলমুক্ত হবে। সাধারণ জনগণ শান্তিতে বসবাস করতে পারবে।

আটক পাঁচজনের বিরুদ্ধে নগরীর বিভিন্ন থানায় বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY