ধর্ষণের মিথ্যা মামলা করায় নারীর কারাদণ্ড

0
111

মেহরেপুরে ধর্ষণের মিথ্যা মামলা দায়ের করায় ডালিয়া নাসরিন নামে এক নারীকে ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। আজ বিকেলে মেহেরপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মো. তরিকুল এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত ডালিয়া নাসরিন মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার বাগুন্দা গ্রামের জমির উদ্দিনের মেয়ে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ডালিয়া নাসরিন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে ২০১৬ সালে আবুল কালামসহ একই গ্রামের গোলাম হোসেনের ছেলে লাল মিয়া এবং মেঘা শেখের ছেলে শাকিলের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ১৭ ধারায় ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ২০১৭ সালের ২০ এপ্রিল মামলাটি মিথ্যা বলে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। আদালত আসামিদেরকে অব্যাহতি প্রদান করে মামলার বাদীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েরর নির্দেশ প্রদান করেন।
আসামি আবুল কালাম বাদী ডালিয়া নাসরিনের বিরুদ্ধে আদালতে নালিশি দরখাস্ত দাখিল করেন। এতে ডালিয়া নাসরিন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ১৭ ধারায় গঠিত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ডেদেশ দেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলি ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর এ কে এম আসাদুজ্জামান এবং আসামিপক্ষের কৌসুলি ছিলেন অ্যাডভোকেট কামরুল হাসান।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY