ইসির সংলাপে অংশগ্রহণ করেননি ২২ বিশিষ্ট নাগরিক

0
95
সংগৃহীত

সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ বৈঠকে ৪০ জন বিশিষ্ট নাগরিককে আমন্ত্রণ জানানো হয় ইসির পক্ষ থেকে। তবে ইসির ডাকা দ্বিতীয় দফা সংলাপে আসেননি ২২ বিশিষ্ট নাগরিক।

মঙ্গলবার (২২ মার্চ) নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের কনফারেন্স রুমে এ বৈঠক বসে।

দ্বিতীয় দফার এই সংলাপে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানানো হয় ৪০ বিশিষ্ট নাগরিককে। তারপর একজনকে এই তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়। মোট ৩৯ বিশিষ্ট নাগরিকের মধ্যে ২২ বিশিষ্ট নাগরিক সংলাপে অংশগ্রহণ করেননি।

বর্তমান আউয়াল কমিশন রাজনৈতিক দলগুলোকে আস্থায় আনতে বিভিন্ন উদ্যোগের অংশ হিসেবে এ বৈঠক জানিয়ে ইসি কর্মকর্তারা বলেন, এরই প্রেক্ষিতে প্রথম সংলাপে একগুচ্ছ প্রস্তাবনা পেয়েছে ইসি। প্রস্তাবগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, ভোটার ও বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে ইভিএম ব্যবহার, দলগুলোর সর্বস্তরের কমিটিতে ৩৩ শতাংশ নারী সদস্যপদ পূরণে ব্যবস্থা নেওয়া, ইসির নিজস্ব কর্মকর্তাদের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ, নির্বাচনের সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীগুলোকে ইসির অধীন রাখা ইত্যাদি।

জনসংযোগ পরিচালক জানান, আজকের বৈঠকের বিষয়ে গত ১৫ মার্চ আমন্ত্রণ জানিয়ে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের চিঠি দেওয়া হয়েছে।

এ আমন্ত্রণে রয়েছেন স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ তোফায়েল আহমেদ, সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার, সাবেক সচিব আবু আলম মো. শহিদ খানসহ মোট ৩৯ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY