ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধে আলোচনার আহ্বান চীনের

0
132
ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধে আলোচনার আহ্বান চীনের

যুদ্ধ অবসানের জন্য রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে আলোচনার আহ্বান জানিয়েছে চীন।

সোমবার (৪ এপ্রিল) ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবার সঙ্গে ফোনে কথা বলার সময় এ আহ্বান জানান চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই।

বেইজিং বলেছে, ইউক্রেনের অনুরোধে এ ফোন করা হয়। ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন বন্ধ করতে মস্কোর সঙ্গে বেইজিংয়ের সম্পর্ক ব্যবহার করতে ওয়াংকে আহ্বান জানান কুলেবা।

চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, সোমবারের টেলিফোনে আলাপকালে ওয়াং আবারও সংঘাতের অবসান ঘটাতে আলোচনার আহ্বান জানিয়েছেন।

ওয়াং বলেন, যুদ্ধ একদিন শেষ হবে। মূল বিষয় হলো কীভাবে ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠা যায়, ইউরোপে স্থায়ী নিরাপত্তা বজায় রাখা যায় এবং একটি সুষম, কার্যকর ও টেকসই ইউরোপীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা যায়।

চীন এ বিষয়ে গঠনমূলক ভূমিকা রাখতে প্রস্তুত বলেও জানান তিনি।

এক টুইটার পোস্টে কুলেবা বলেন, বেসামরিক ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে সংহতির জন্য ওয়াংয়ের কাছে কৃতজ্ঞ। আমরা শান্তি, বৈশ্বিক খাদ্য নিরাপত্তা এবং আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের স্বার্থে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধের অবসানে কাজ করতে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছি।

উল্লেখ্য, পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য কয়েক বছর আগে আবেদন করে ইউক্রেন। মূলত, এ নিয়েই রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। এর মধ্যে ন্যাটো ইউক্রেনকে পূর্ণ সদস্যপদ না দিলেও ‘সহযোগী দেশ’ হিসেবে মনোনীত করায় দ্বন্দ্বের তীব্রতা আরও বাড়ে। ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন প্রত্যাহারে ইউক্রেনের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে যুদ্ধ শুরুর দুই মাস আগ থেকেই ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় দুই লাখ সেনা মোতায়েন রাখে মস্কো। কিন্তু এই কৌশল কোনো কাজে না আসায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দুই ভূখণ্ড দনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় রাশিয়া। ঠিক তার দুদিন পর ২৪ তারিখ ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী স্থল, আকাশ ও সমুদ্রপথে ইউক্রেনে এই হামলা শুরু করে।

যুদ্ধে এখন পর্যন্ত ১৮ হাজার ৩০০ রুশ সেনা নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন।
সূত্র : আলজাজিরা

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY