তেলবাহী ট্যাংকার জব্দ: মুখোমুখি ইরান-যুক্তরাষ্ট্র

0
121
সংগৃহীত

ইরান ও গ্রিসের পাল্টাপাল্টি তেলবাহী ট্যাংকার জব্দ নিয়ে ওয়াশিংটন-তেহরান উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে। গ্রিসের তেলবাহী ট্যাংকার জব্দের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে নাবিকদের মুক্তির পাশাপাশি জাহাজ দুটিকে ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অন্যদিকে, গেল মাসে গ্রিস উপকূল থেকে জব্দ করা ইরানের পতাকাবাহী তেল ট্যাংকারের পাল্টা মুক্তি দাবি করেছে ইরান।

গ্রিস উপকূল থেকে ইরানের পতাকাবাহী তেলের ট্যাংকার জব্দ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই পারস্য উপসাগর থেকে গ্রিসের জাহাজ জব্দ করার ভিডিও প্রকাশ করেছে ইরান।

দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়, ‘পারস্য উপসাগর থেকে গ্রিসের দুটি তেলবাহী জাহাজ আটকের ভিডিও প্রকাশ করেছে ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী আইআরজিসি’।

ওই ভিডিওতে দেখা যায়, আইআরজিসি’র স্পেশাল ফোর্সের সদস্যরা হেলিকপ্টার থেকে জাহাজে নেমে তার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর দাবি, ইরানের জলসীমা লঙ্ঘন করায় পারস্য উপসাগর থেকে গ্রিসের দুটি তেলবাহী জাহাজ আটক করা হয়েছে।

তবে গ্রিসের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে দাবি করা হয়, তেলবাহী ট্যাংকার ‘ডেল্টা পজিডন’ আন্তর্জাতিক জলসীমায় থাকলেও, অন্য জাহাজটি ইরানের জলসীমায় প্রবেশ করেছিল।

এদিকে গ্রিসের তেলের জাহাজ জব্দের ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে ওয়াশিংটন। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে জাহাজ দুটিকে ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এর আগে, নিষেধাজ্ঞা অমান্যের অভিযোগ এনে গ্রিস উপকূল থেকে ইরানের পতাকাবাহী তেল ট্যাংকার ‘পেগাস’ আটক করে যুক্তরাষ্ট্র। একইসঙ্গে ইরানের ৬ লাখ ব্যারেল অপরিশোধিত তেল জব্দ করে ওয়াশিংটন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY