মরা গরুর মাংস বিক্রিঃ কারাগারে ২ কসাই

0
97

মরা মুরগি ও ছাগলের মাংস বিক্রির ঘটনার একমাস না যেতেই ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে এবার মরা গরুর মাংস বিক্রির সময় দুই কসাইকে আটক করা হয়েছে। পরে তাদের একমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (৬ জুন) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে দুজনকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের শাহাপাড়া গ্রামের সলিম উদ্দীনের ছেলে রমজান আলী (৪৫) ও বিশ্রামপুর গ্রামের আব্দুল আলীর ছেলে পয়জার আলী (৩৮)।

সহযোগী স্যানেটারি ইন্সপেক্টর আব্দুল গফুর বলেন, সদর উপজেলার মটরা হাট থেকে একটি মরা গরুর মাংস বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের কাঁচকালী বাজারে ইজিবাইকে নিয়ে এসে রাতের আঁধারে বিক্রির সময় স্থানীয়রা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) যোবায়ের হোসেনকে জানান। পুলিশসহ ইউএনও ঘটনাস্থলে গিয়ে দুজনকে আটক করলেও মোস্তফা নামে একজন পালিয়ে যান। তিনিই ওই গরুর মালিক ছিলেন বলে জানা গেছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক যোবায়ের হোসেন বলেন, জবাই করার পর গরুটি ইজিবাইকে নিয়ে এসে মাংস বিক্রির চেষ্টা চলছিল। এমন খবরে পুলিশ সদস্যদের সহযোগিতায় দুজনকে আটক করা হয়। নিজেদের দোষ স্বীকার করলে তাদের একমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল আনাম ডন বলেন, আজ দুপুরে আদালতের মাধ্যমে দণ্ডপ্রাপ্ত দুজন কসাইকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে ১০ মে মরা মুরগির মাংস রান্না করে বিক্রির দায়ে হোটেল মালিক সেলিম উদ্দীনকে ৫ হাজার টাকা ও মাংস বিক্রেতা আব্দুলকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ২০ মে মরা ছাগলের মাংস বিক্রির দায়ে নজরুল ইসলাম (৪৮) ওরফে ইদু নামে এক কসাইকে জেলে পাঠানো হয়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY