ধামরাইয়ে বিয়ের দাবিতে নবম শ্রেণির ছাত্রের বাড়িতে দশম শ্রেণির ছাত্রী

0
94
ধামরাইয়ে বিয়ের দাবিতে নবম শ্রেণির ছাত্রের বাড়িতে দশম শ্রেণির ছাত্রী

ঢাকার ধামরাইয়ে বিয়ের দাবিতে বিষের বোতল হাতে প্রেমিক নবম শ্রেণির ছাত্রের বাড়িতে আমরণ অনশনে বসেছে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রী।

অনশনরত ওই ছাত্রী জানায়, তার প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত মরে গেলেও সে এ বাড়ি ছাড়বে না। ফলে মহাবিপাকে পড়েছেন ওই প্রেমিকের পরিবারের লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের পাবরাইল গ্রামের মো. আয়নাল হকের বাড়িতে।

সোমবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই প্রেমিকা তার প্রেমিক হাসানের বাড়িতে অনশনে আছে। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

অনশনরত ওই প্রেমিকা আরও জানায়, বৃহস্পতিবার বিকালে বিয়ের কথা বলে হাসান আমাকে তাদের বাড়িতে নিয়ে আসে। সারারাত স্বামী-স্ত্রীর মতো কাটিয়ে আমাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। তাকে বারবার অনুরোধ করার পরও সে আমাকে বিয়ে করতে রাজি না হলে রোববার আমি ওই বাড়িতে এসে অনশন শুরু করেছি। বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত এ অনশন চলবে।

তবে প্রেমিক হাসান জানায়, ওই মেয়ে আমার চেয়ে সিনিয়র। তাই তাকে বিয়ে করা সম্ভব নয়। তা ছাড়া প্রেম-ভালোবাসা হলেই কি যাকে-তাকে বিয়ে করা যায় নাকি?

এ বিষয়ে বালিয়া ৯নং ওয়ার্ড মেম্বার মো. ইমরান হোসেন বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। আমাকে বিষয়টি কেউ জানায়নি। বিষয় খোঁজখবর নিয়ে দেখি কি করা যায়।

বালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. মজিবর রহমান বলেন, আমি এ ব্যাপারে কোনো কিছুই অবগত নই। দুদিন হয়ে গেল বিষয়টি এখনো পর্যন্ত কেউ আমাকে অবহিত করেনি। তবে এসব বিষয় আইনের আওতাধীন। এ ক্ষেত্রে আমার কিছুই করার নেই।

এ বিষয়ে কাওয়ালীপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ উপপুলিশ পরিদর্শক (এসআই) মো. মজিবর রহমান বলেন, একটা মেয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন করার কথা শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। তার পরও বিষয়টা আমি দেখে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে ব্যবস্থা নেব।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY