মানিকগঞ্জে গোয়ালঘরে আটকে রাখা সেই মায়ের আবেদনেই জামিন পেলেন ছেলেরা

0
111
মানিকগঞ্জে গোয়ালঘরে আটকে রাখা সেই মায়ের আবেদনেই জামিন পেলেন ছেলেরা

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার মধ্য চারিগ্রাম এলাকার বৃদ্ধা মা আয়েশা বেগমকে (৮৫) গোয়ালঘরে আটকে রাখার ঘটনায় আটক দুই ছেলে ও এক ছেলের বউকে জামিন দিয়েছেন আদালত।

গতকাল সোমবার (১৩ জুন) বেলা ৪টার দিকে মানিকগঞ্জের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আবদুন নূর বৃদ্ধা মায়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদের জামিন দিয়েছেন। জামিনপ্রাপ্তরা হলেন ছেলে কালাম মিয়া (৫৫) ও ছেলের কালামের স্ত্রী মর্জিনা আক্তার (৩২) এবং মোস্তফা কামাল (৪৫)।

সিঙ্গাইর কোর্টের জিআরও এএসআই জাহাঙ্গীর জানিয়েছেন, দুপুরে আসামিদের কোর্টে তোলার সময় ওই বৃদ্ধা মা আয়েশা বেগম উপস্থিত থেকে আইনজীবীদের মাধ্যমে বিচারকের কাছে আটক ছেলে ও ছেলের বউর জামিন আবেদন করেন। এর প্রেক্ষিতে বিচারক তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আর্থিক অস্বচ্ছলতার অজুহাতে বৃদ্ধা মা আয়েশা বেগমকে প্রায় ৬ মাস ধরে গরুর সঙ্গে গোয়ালঘরে আটকে রাখে ছেলে ও ছেলের স্ত্রী। এমনকি ঠিকমতো খাবার দিতেন না এবং সেবা-যত্ন করতেন না। প্রতিবেশীরা তাকে খাবার দিলে এবং সেবা-যত্ন করতে গেলে তাদের সঙ্গেও খারাপ আচরণ করতেন ছেলে ও ছেলের স্ত্রী।

এরপর গত ৬ জুন মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপারকে জানিয়েছে স্থানীয়রা। গত ১১ জুন রাতে ওই বৃদ্ধাকে গোয়াল থেকে উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে দুই ছেলে ও ছেলের স্ত্রীকে আটক করা হয়।

সিঙ্গাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম মোল্যা জানান, পুলিশ সুপারের নির্দেশে রাতেই ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করা হয় এবং ছেলে ও ছেলের স্ত্রীকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় রোববার সকালে পিতা-মাতার ভরণপোষণ আইনে ছেলে কমল মিয়া, মোস্তফা কামাল এবং পুত্রবধূ মর্জিনা আক্তার ও বিলকিস আক্তারকে আসামি করে মামলা করেন ওই বৃদ্ধা। মামলার পর সোমবার দুপুরে তাদের কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ওই বৃদ্ধা মা কে স্থানীয় চেয়ারম্যানের দায়িত্বে অপর ছেলের বউ বিলকিস আক্তারের কাছে নিজ বাড়িতে সেবাযত্ন এবং দেখভালের জন্য রাখা হয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY