২০২৩ বিশ্বকাপ দিয়ে ইতি টানবেন চার সিনিয়র ক্রিকেটার

0
198
সংগৃহীত

বাংলাদেশ ক্রিকেট ওয়ানডে ফরম্যাটে সমীহ জাগানিয়া দল হওয়ার পেছনে বড় ভূমিকা ছিল পঞ্চপাণ্ডবের। মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা যেখানে ছিলেন সবার চেয়ে সিনিয়র। ২০১৯ বিশ্বকাপের শেষে ২০২০ সালে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়ে থেমেছিলেন মাশরাফী।

তবে বাংলাদেশ দলকে এখনো এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন বাকী চারজন; তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। চার ক্রিকেটারই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পার করতে যাচ্ছেন ১৫ বছর করে।

যেখানে মুশফিক সবচেয়ে বেশি ১৭ বছর, সাকিব ১৬ বছর, তামিম ১৫ বছর এবং মাহমুদউল্লাহ ১৫ বছর স্পর্শ করার থেকে আর দিন দশেক দূরে। নিয়মের আবর্তে এই চারজনকেই থামতে হবে। তবে থামার আগে স্মৃতিতে রাখার জন্য শিরোপার লক্ষ্যে এগুচ্ছেন চার ক্রিকেটারই।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে গায়ানায় দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচের পর টাইগারদের বর্তমান ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল জানিয়েছেন, এই চার ক্রিকেটারের লক্ষ্য ২০২৩ বিশ্বকাপ। এই বিশ্বকাপ রাঙিয়ে নিজেদের ক্যারিয়ারের ইতি টানতে চান তারা।

ম্যাচশেষের সংবাদ সম্মেলনে তামিম চার সিনিয়র বললেও নাম বলেননি কারোই। বর্তমান টাইগার দলে তামিম, সাকিব, মুশফিক এবং রিয়াদের ক্যারিয়ারের কাছাকাছি নেই অন্য কারো। ফলে তাদের বিদায়ের ইঙ্গিতই যে তামিম দিয়েছেন, সেটি পরিষ্কার করেই ধারণা করা যায়।

ম্যাচশেষে তামিম বলেন, এখনও অনেক জায়গা আছে, যেগুলো আমাদের ঠিকঠাক করতে হবে। ২০২৩ বিশ্বকাপ সম্ভবত হবে আমাদের জন্য সবচেয়ে বড় আসরগুলির একটি, বিশেষ করে আমাদের চার জনের জন্য, আমরা খুব সম্ভবত সেখানেই শেষ করব। আমাদের স্রেফ সম্ভাব্য সেরা দল সমন্বয় ও সেরা দল গড়তে হবে।

এই চার ক্রিকেটারের মধ্যে একমাত্র মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ফর্ম এবং ফিটনেস নিয়ে কিছুটা সংশয় থাকলেও বাকি তিন সিনিয়রের বিকল্প এই মুহূর্তে বাংলাদেশ ক্রিকেটে নেই। মাহমুদউল্লাহ অবশ্য উইন্ডিজদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে অপরাজিত ৪১ রানের ইনিংস খেলে ফর্মে ফেরার আভাস দিয়েছেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY