রিটার্ন না দিলে বিদ্যুৎ ও গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন হবে

0
92
সংগৃহীত

৪০ ধরনের সেবা প্রাপ্তিতে একজন ব্যক্তির আয়কর রিটার্ন দাখিল বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আয়কর নির্দেশিকা ২০২২-২৩ অনুযায়ী করযোগ্য আয় না থাকলেও একজন গ্রাহককে রিটার্ন দাখিল করতে হবে।

৪০ সেবার মধ্যে রয়েছে- গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে অবশ্যই রিটার্ন দাখিলের চিঠি দেখাতে হবে। রিটার্ন দাখিলের কাগজ দেখাতে না পারলে বিচ্ছিন্ন করা হবে গ্যাস কিংবা বিদ্যুতের সংযোগ। অন্দিযকে চাকরিজীবীদের বেতন-ভাতা প্রাপ্তিতে রিটার্ন দেখাতে হবে।

করের আওতা বৃদ্ধি করতে নতুন নতুন নিয়মের আওতায় গ্রাহকদের আনছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) আয়কর বিভাগ।

তবে এবার হালনাগাদ শর্তে বিগত রিটার্ন দাখিলে ব্যর্থদের জরিমানা মওকুফের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে আয়কর বিভাগের পক্ষ থেকে।

নিয়ম অনুযায়ী, কোনো ব্যক্তি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আয়কর রিটার্ন জমা না দিলে আয়কর অধ্যাদেশের ১২৪ ধারা অনুযায়ী জরিমানা করা যাবে। যদি গ্রাহক নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিটার্ন দাখিল করা সম্ভব নয় জানিয়ে সময়সীমা বাড়ানোর জন্য নির্ধারিত ফরমে উপযুক্ত কারণ উল্লেখ করে উপ-কর কমিশনারের কাছে সময়ের আবেদন করেন। উপ-কর কমিশনার সময় দিতে পারেন। এতে অতিরিক্ত সরল সুদ ও বিলম্ব সুদ আরোপিত হবে।

এর আগে সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের দেওয়া বাজেটে ছয়টি বিশেষ প্রস্তাব পাস করা হয়।

যার মধ্যে রয়েছে- আয়কর রিটার্ন দাখিলের প্রমাণ উপস্থাপন বাধ্যতামূলক করা; স্বীকৃত প্রভিডেন্ট ফান্ড, অনুমোদিত গ্র্যাচুইটি ফান্ড, পেনশন ফান্ড, অনুমোদিত সুপার এনুয়েশন ফান্ড এবং শ্রমিক অংশগ্রহণ তহবিল ছাড়া অন্যান্য ফান্ডের রিটার্ন দাখিল। ধারাবাহিক তিন বছর বা ততোধিক সময়ব্যাপী কোনো কোম্পানির কার্যক্রম বন্ধ থাকলে পরিচালকদের কাছ থেকে বকেয়া অবিতর্কিত কর আদায়ের বিধান করা। অনস্পট কর নির্ধারণের বিদ্যমান বিধানকে কেবলমাত্র গ্রোথ সেন্টারগুলো সীমাবদ্ধ না রেখে সব পর্যায়ে এর প্রয়োগ বিস্তৃত করা। সরকারের অবিতর্কিত রাজস্ব দাবি পরিশোধে ব্যর্থ হলে গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানিসহ অন্যান্য সেবা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার বিধান প্রবর্তন। যেসব এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ইংরেজি ভার্সন চালু রয়েছে তাদের আয়কর রিটার্ন দাখিলের বিধান প্রবর্তন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY