ক্ষমতায় গেলে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে যা যা করবে বিএনপি

0
112
ক্ষমতায় গেলে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে যা যা করবে বিএনপি

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির ফলে দেশ যখন সরগরম ঠিক সেই মুহূর্তে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানালেন, বিএনপি ক্ষমতায় গেলে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে কি কি করবে তার দল।

শনিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেন।

মূল্য সমন্বয় করতে হঠাৎ করেই দেশে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় সরকার। যা দেশের ইতিহাসের সর্বোচ্চ দাম। জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধিতে দেশের প্রায় প্রতিটি খাতেই এর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। ফলে ব্যাহত হচ্ছে বিদ্যুৎ, কৃষি ও শিল্প উৎপাদন।

এ অবস্থায় বিএনপি নির্বাচিত হয়ে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় গেলে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সেক্টর উন্নয়নে যে সব পদক্ষেপ গ্রহণ করবে তা জানালেন ফখরুল।

চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক:-

১. বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইনসহ এ সংক্রান্ত সব কালাকানুন বাতিল করা হবে।

২. রেন্টাল/কুইক রেন্টাল কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি নবায়ন বন্ধ/বাতিল করা হবে।

৩. স্বচ্ছ প্রতিযোগিতামূলক আন্তর্জাতিক টেন্ডারের মাধ্যমে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ ও অন্যান্য কাজ সম্পাদন করা হবে।

৪. চাহিদা অনুযায়ী পাওয়ার প্ল্যান্ট স্থাপনের জন্য মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে।

৫. উৎপাদন ও চাহিদার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ লাইন অতিদ্রুত স্থাপন করা হবে।

৬. বাপেক্স ও অন্যান্য সরকারি সংস্থার মাধ্যমে দেশীয় খনিজ ও গ্যাস উত্তোলনের জন্য যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। একইসঙ্গে দেশীয় প্রকৌশলী ও সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহকে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে দক্ষ করে তুলতে উপযুক্ত উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

৭. বঙ্গোপসাগরে সম্ভাবনাময় গ্যাস/পেট্রোলিয়াম ও অন্যান্য খনিজ পদার্থ উত্তোলনে দ্রুত কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

৮. বিদ্যুৎ ও জ্বালানিখাতের সব দুর্নীতি-অনিয়মের সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

৯. দেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতকে টেকসই ও নিরাপদ করতে জীবাশ্ম জ্বালানি নির্ভরতা কমিয়ে ক্রমান্বয়ে মোট উৎপাদনের ৫০% নবায়নযোগ্য শক্তি নির্ভর জ্বালানি নীতি গ্রহণ করা হবে। বিশেষ জোর দেয়া হবে পানি-বিদ্যুৎ উৎপাদনে।

১০. বেস লোড পাওয়ার প্লান্ট (Base load power plant) স্থাপনের মাধ্যমে স্বল্প ব্যয়ে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ উৎপাদন নিশ্চিত করা হবে।

১১. বৃহৎ বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রগুলোকে প্রয়োজনীয় মেরামত ও ওভারহাউলিং (overhauling) এর মাধ্যমে উৎপাদন উপযোগী করে গড়ে তোলা হবে।

১২. বেগম খালেদা জিয়ার বিএনপির ভিশন – ২০৩০ বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সেক্টর উন্নয়নে ঘোষিত পদক্ষেপসমূহ বাস্তবায়ন করা হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY