উত্তরায় গার্ডার দুর্ঘটনার মামলা তদন্তে ডিবি

0
72
ফাইল ছবি

রাজধানীর উত্তরায় নির্মাণাধীন বিআরটি প্রকল্পের ক্রেন থেকে গার্ডার ছিটকে পড়ে প্রাইভেটকারে থাকা শিশুসহ নিহত হওয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলার ছায়া তদন্ত করছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। তবে মামলা হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

বুধবার (১৭ আগস্ট) ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ।

তিনি বলেন, ‍উত্তরায় গার্ডার দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় উত্তরা পশ্চিম থানায় দায়ের করা মামলার তদন্ত করছে পুলিশ। আমরাও ওই মামলাটি ছায়া তদন্ত করছি।

মামলায় অবহেলাজনিতভাবে ক্রেন পরিচালনাকারী চালক, প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে দায়িত্বপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

এদিকে গার্ডার ছিটকে পড়ে প্রাইভেটকারে থাকা শিশুসহ নিহত পাঁচ যাত্রীর প্রত্যেকের পরিবারকে ১ কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে রিট দায়ের করা হয়েছে।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার এ ঘটনায় আরেকটি রিট দায়ের করা হয়। ওই রিটে জনগণের চলাফেরায় প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ও গার্ডার চাপার ঘটনা তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবার (১৫ আগস্ট) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে উত্তরায় প্যারাডাইস টাওয়ারের সামনে বিআরটি প্রকল্পের ক্রেন থেকে গার্ডার ছিটকে পড়ে প্রাইভেটকারের পাঁচ যাত্রী নিহত হন। ওই গাড়িতে থাকা নবদম্পতি গুরুতর আহত হলেও প্রাণে বেঁচে যান। হতাহতরা ঢাকায় একটি বৌভাতের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে ফিরছিলেন।

নিহতরা হলেন- আইয়ুব আলী হোসেন রুবেল (৫৫), ফাহিমা আক্তার (৩৮), ঝরনা আক্তার (২৭), জান্নাতুল (৬) ও জাকারিয়া (৪)। আহত নবদম্পতি হলেন হৃদয় (২৬) ও রিয়া মনি (২১)। দুজনেই উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ঘটনার রাতেই নিহত ফাহিমা আক্তার ও ঝরনা আক্তারের ভাই মো. আফরান মণ্ডল বাবু বাদী হয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় এ মামলা করেন। মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২২ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য রয়েছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY