চলতি বছরের মধ্যে ‘বঙ্গবন্ধু’ বায়োপিকের মুক্তি: তথ্যমন্ত্রী

0
28

চলতি বছরের মধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী (বায়োপিক) অবলম্বনে নির্মিত সিনেমা ‘মুজিব: দ্য মেকিং অব আ নেশন (মুজিব: একটি জাতির রূপকার)’ মুক্তি পেতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হাছান মাহমুদ। ভারতের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় এটি নির্মিত হয়েছে। ‘মুজিব’ সিনেমাটি প্রধানমন্ত্রী দেখে অনুমোদন দেওয়ার পর এটি মুক্তি পাবে।

সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

এর আগে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের বিদায়ী হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক রেডি। প্রধানমন্ত্রী দেখার পর, তিনি চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়ার পর আশা করছি এ বছরের মধ্যে সেটি রিলিজ করা সম্ভব হবে।’

‘মুজিব: দ্য মেকিং অব আ নেশন’ নির্মাণ করেছেন বলিউডের খ্যাতিমান নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল। এ সিনেমায় বঙ্গবন্ধুর ভূমিকায় আছেন বাংলাদেশের অভিনেতা আরিফিন শুভ। বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী ফজিলাতুন নেছা মুজিবের চরিত্রে নুসরাত ইমরোজ তিশা, শেখ হাসিনার চরিত্রে নুসরাত ফারিয়া, তাজউদ্দীন আহমদের চরিত্রে রিয়াজ আহমেদসহ আরও অনেকে এতে অভিনয় করেছেন। কয়েক মাস আগে সিনেমাটির ট্রেইলার প্রকাশ হলে এর বিভিন্ন বিচ্যুতি নিয়ে সমালোচনা হয়।

হাইকমিশনারের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘তিনি (দোরাইস্বামী) যুক্তরাজ্যে ভারতের হাইকমিশনারের দায়িত্ব পালন করতে যাচ্ছেন। তার অবস্থানকালীন ভারত-বাংলাদেশের মৈত্রীর বন্ধন আরও সুদৃঢ় হয়েছে। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে, গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত সফল একটি ভারত সফর করে এসেছেন।’

‘এ সফরে অনেকগুলো অর্জন আছে, যেমন- কুশিয়ার নদীর পানি আমাদের পক্ষে প্রত্যাহার অর্থাৎ আমরা নিতে পারব। ভারতের স্থলভাগের ওপর দিয়ে, ভারতের যেকোনো বন্দর ব্যবহার করে বাংলাদেশের পণ্য তৃতীয় দেশে রপ্তানি করা যাবে। যেটির জন্য আমরা বহু বছর ধরে চেষ্টা করছিলাম। আমরা আলাপ-আলোচনার মধ্যে ছিলাম, এ সফরের মধ্য দিয়ে সেটির সুরাহা হয়েছে। এটি একটি বড় অর্জন ও বড় চুক্তি। এটি মৈত্রীর বন্ধনকে আরও সুদৃঢ় করেছে।’

প্রধানমন্ত্রীর এ সফর সফল করার ক্ষেত্রে দোরাইস্বামীর অনেক বড় ভূমিকা ছিল বলেও জানান হাছান মাহমুদ।

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রকৃত পক্ষে ভারত-বাংলাদেশের মৈত্রী রক্তের বন্ধনে আবদ্ধ। এ বন্ধন আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদীর নেতৃত্বে আরও দৃঢ় হয়েছে।’

বিদায়ী হাইকমিশনার বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক প্রস্তুত। আশা করছি, শিগগির এটি মুক্তি পাবে।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY